• বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৭:২১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বিএমএসএফ কক্সবাজার জেলা শাখার উদ্দ্যোগে ১৫-ই আগষ্ট উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন। নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, কথিত প্রেমিক কক্সবাজারের রেজা চট্টগ্রামে আটক ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

পুলিশের পাতানো জালে আটকে গেল দুর্ধর্ষ রোহিংগা শীর্ষ সন্ত্রাসী ত্বোহা!

AnonymousFox_bwo / ২৬৯ মিনিট
আপডেট শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০

আইকন নিউজ টুডে ডেস্কঃ
উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে মোঃ ত্বোহা নামের শীর্ষ এক রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার সকাল ৯টার দিকে তাকে আটক করেন পুলিশ।

সুত্রে জানা গেছে, মোঃ ত্বোহা ২০১৭ সালের আগষ্টের পরে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেন কুতুপালং লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে। সেখানে মাস্টার মুন্না নামের আরেক সন্ত্রাসীর সাথে হাত মিলিয়ে সন্তাসী ত্বোহা গড়ে তুলে একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ৷ পরে প্রশাসনের তৎপরতায় ধরপাকড় শুরু হলে ত্বোহা বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে থেকে আসছিল। অবশেষে পুলিশের পাতানো জালে আটকে গেল বালুখালী ২নং ক্যাম্পে। সেখানে বসেই সে ৩৪ টি রোহিঙ্গা ক্যাম্প নিয়ন্ত্রণ করতো বলে খবর পাওয়া গেছে৷ প্রতিটি ক্যাম্পে এ-ই সন্ত্রাসীর রয়েছে শক্তিশালী গ্রুপ। যারা ক্যাম্পে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও অাধিপত্য বিস্তার থেকে শুরু করে চাঁদাবাজি, লুটতরাজ, গুম, খুন, অপহরণ, মুক্তিপণসহ বিভিন্ন অপরাধঈ কর্মকান্ডে লিপ্ত।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বালুখালী ২নং ক্যাম্পের এক রোহিঙ্গা নেতা অভিযোগ করে বলেন, ত্বোহা লম্বাশিয়া থাকাকালীন নানান অপরাধে জড়িত ছিল, তাই প্রশাসনের গ্রেফতারের ভয়ে গত ১বছর পূর্ব থেকে সে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয় বালুখালী ২নং ক্যাম্পে।

স্থানীয় লোকজন জানান, ত্বোহা গত ২০১৯ সালের শুরুর দিকে ৭নং ক্যাম্পের নৌকার মাঠে যে ঘটনা সংঘটিত হয়েছিল তার নেপথ্যে জড়িত। এছাড়াও ক্যাম্পের অভ্যন্তরে গড়ে উঠা ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে চাঁদা উত্তোলন, চাকরিজীবী রোহিঙ্গা পরিবার থেকে মাসিক মাসোহারা আদায় করতেন ত্বোহা।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) গাজী সালাউদ্দিন বলেন, বালুখালী ২ নং ক্যাম্প থেকে ত্বোহা নামের একজন রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ তার অভিযোগ গুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....