• রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১০:২৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাহাড় খেকো সিন্ডিকেটের হাতে উখিয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা পর্যুদস্ত, থানায় মামলা। উখিয়া কুতুপালং বাজার ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিঃ এর নির্বাচনে-জানে আলম সভাপতি ও মোঃ আলী সাঃ সম্পাদক নির্বাচিত। উখিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম নুরুল ইসলাম চৌধুরী স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা-২০২২ অনুষ্ঠিত ফলিয়াপাড়া আলিমুদ্দীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিদায় অনুষ্ঠান সম্পন্ন। মানসিক ভারসাম্যহীন লিল মিয়া দীর্ঘ ২০ বছর পর পরিবারের কাছে ফিরে তাক লাগিয়ে দিল। টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ২৭৮ কার্টুন বিদেশী সিগারেট পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার উখিয়ার থাইংখালী মহিলা হিফ্জ খানায় এ বছরে ৫ জন হিফজ সম্পন্নকারীদের সংবর্ধনা সম্পন্ন নাইক্ষ্যংছড়ি তুমব্রু সীমান্তে নিহত ডিজিএফআই কর্মকর্তা রেজওয়ান রুশদীর দাফন সম্পন্ন কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জাতীয় দৈনিক ভোরের চেতনা পত্রিকার ২৪তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী। প্রেমের ভিডিও ধারনের জেরে দপ্তরি হাফেজ দিদার খুন বলে সন্দেহ-ব্যাপারটা পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

চাকুরী প্রার্থীদের ডিসেম্বর ও জানুয়ারি মাসের পরিসংখ্যান:

AnonymousFox_bwo / ২৯৩ মিনিট
আপডেট সোমবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২১

আইকন নিউজ ডেস্কঃ

চাকরির আবেদন খরচ ৫ টা – ৩০০০ টাকা
৪ বার ঢাকা আসা যাওয়া খরচ ১০০০০টাকা
বই ও শীট ফটোকপি ৬৫০০/-
মানে ২০০০০/- টাকা। এছাড়া যারা পরিবারের বাইরে থাকে তাদের বাসা ভাড়া, খাবার ও ব্যক্তিগত খরচ তো আছেই!

কোচিং কিংবা অনলাইন ক্লাসের ফি টা বাদ ই দিলাম।

একটা বেকার ছেলে যদি একটা ভাল চাকুরি পেতেই প্রতি মাসে অন্তত ১০০০০ টাকার উপরে খরচ করে এবং এর বোঝা এই বয়সে তার পরিবার কে টানতে হয়, সেই হিসেবে দেশের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি এখনো অনেক ভাল আছে মনে করি আমি।

২৬ লক্ষ বেকারের এই বাড়তি খরচ যোগাতে দেশে দিনে দুপুরে চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি হওয়ার কথা ছিল!

আচ্ছা একটি ৯ম গ্রেডের চাকরির প্রিলিমিনারি ফি কেন ৭০০/৯০০/১০০০ টাকা বলতে পারেন???

১ ঘন্টার চাকরির পরীক্ষার জন্য দেশের বিভিন্নপ্রান্ত থেকে ৮/১০ ঘন্টা ও অর্থ ব্যয় করে আমি ঢাকা কেন যাব??? তাহলে বিভাগীয় শহর করার প্রয়োজন কি ছিল???

পরীক্ষার হলে ব্যাগ- মোবাইল ঢুকাতে দেন না। যাদের ঢাকায় কেউ নাই তারা মূল্যবান জিনিস কোথায় রাখবে??? সাধের পরীক্ষা দিতে এসে সখের মোবাইল হারিয়েছেন অনেকেই।

ছাত্রদের অধিকার নিয়েই যদি না ভাববে তবে দেশের এত ছাত্রসংগঠনের, অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের, ডাকসু, চাকসু, হাবিজাবির প্রয়োজন কি????

প্রিলি হলে রিটেন হয় না, রিটেন হলে ভাইবা বোর্ডে উনাদের পছন্দ হয় না, উনাদের অপছন্দের কারনে চাকরি হয় না।

আর এই বয়সে ভাল চাকরি না হলে কি হয় তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। অনেকের বৃদ্ধ মা বাবা শান্তিতে মরতেও পারেনা ছেলে মেয়ের একটা ভাল অবস্থান দেখে যেতে না পারার কারনে।

কয়েকদিন আগে খবরে পড়েছি,ভারতে উচ্চশিক্ষিত ছেলে ফুড ডেলিভারির কাজ করায় অবসাদে আত্নহত্যা করেছেন বৃদ্ধ পিতা মাতা!

আমাদের ২৪-৩০ বছরের ছেলে মেয়েরা মানসিক দিক থেকে অনেক স্ট্রং যার কারনে এখানে আত্নহত্যার রেট নাই বললেই চলে।

আর ৩০ বছর পার হলেই চাকরির বাজারে আপনার খেলা শেষ! আপনি আবেদনের অযোগ্য! অথচ অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে পোস্ট গ্রাজুয়েশন শেষ করতেই ২৭/২৮ বছর লেগে যাচ্ছে সেশন জট সহ নানা প্রতিকূলতার কারনে।

৩০ বছর পার হলে যে পড়াশোনার দাম দেশে নাই, সে পড়াশুনায় জীবনের ২৫ টি বছর আমি কেন অতিবাহিত করব বলতে পারেন????

এত আজাইরা ভংগিরি ছেড়ে ১৮ বছর বয়সে ইউরোপ- আমেরিকার কিংবা মধ্যপ্রাচ্যে কামলা দিলেও বাড়ি, গাড়ি ও কোটি টাকার মালিক হতে পারতাম।

কি লাভ বলেন তো ভাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাল সাবজেক্ট এ 1st Class পেয়ে???

আইকন নিউজ/ আ র/ ১৯/০১/২০২১


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর....