• বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বিএমএসএফ কক্সবাজার জেলা শাখার উদ্দ্যোগে ১৫-ই আগষ্ট উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন। নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, কথিত প্রেমিক কক্সবাজারের রেজা চট্টগ্রামে আটক ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

মার্চেই ছয় মাসের টাকা পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা

AnonymousFox_bwo / ২৯৩ মিনিট
আপডেট বুধবার, ১৭ মার্চ, ২০২১



বিভিন্ন কারণে দেশে প্রায় এক বছর বন্ধ ছিল প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি বিতরণ। দীর্ঘ দিন আটকে ছিল শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা। অবশেষে সব জটিলতা শেষে আবারও শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে ২০২০ সালের এপ্রিল, মে ও জুন মাসের উপবৃত্তির টাকা ছাড় হয়েছে।

জানা গেছে, মার্চ মাসের মধ্যেই এ কিস্তির টাকা পরিশোধ হয়ে যাবে। এছাড়া ২০২০ সালের বাকী ছয় মাসের টাকাও মার্চ মাসের মধ্যেই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।
এ প্রসঙ্গে প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি প্রদান প্রকল্পের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. ইউসুফ আলী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, বিভিন্ন কারণে গত ৯ মাসের টাকা দেওয়া সম্ভব হয়নি। এপ্রিল, মে, জুন মাসের দ্বিতীয় কিস্তির বকেয়া টাকা ছাড় হয়েছে। নগদের সহায়তায় দ্রুত সময়ের মধ্যে এ টাকা শিক্ষার্থীদের কাছে পৌঁছে যাবে।

তিনি আরও বলেন, যাদের এখনও নগদের সার্ভারে তথ্য এন্ট্রি দেওয়া বাকি আছে তাদের সুযোগ দিতে ১৫ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে নগদের পোর্টাল উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।
জানা গেছে, অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে ৩ হাজার ৫০০ কোটি টাকা উপবৃত্তি ও কিউস অ্যালাউন্সের জন্য ছাড় করা হয়েছে সম্প্রতি। এ টাকা থেকে প্রাথমিক পর্যায়ের নিয়মিত ১ কোটি ১০ লাখ শিক্ষার্থীর কিডস অ্যালাউন্স বাবদ প্রায় ১১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হবে। এছাড়া উপবৃত্তির তিন কিস্তির বকেয়া পরিশোধ করা হবে।
এ প্রসঙ্গে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন ঢাকা সংবাদমাধ্যমকে বলেন, কিডস অ্যালাউন্স ও বকেয়া উপবৃত্তির টাকা দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ পেয়েছি। যে কোনো সময় এ টাকা বিতরণ করা হবে। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর এ টাকা শিক্ষার্থীদের হাতে উপহার হিসেবে তুলে দিতে চাই। যাতে তারা নতুন উদ্যোমে ক্লাসে ফিরতে পারে।
এদিকে প্রাক-প্রাথমিকের প্রতিটি শিক্ষার্থীকে ৫০ টাকা হারে উপবৃত্তি দেওয়া হতো। এখন তা বাড়িয়ে ৭৫ টাকা করা হয়েছে। এছাড়া প্রাথমিক স্তরের এক সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের মাসিক উপবৃত্তি ১০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৫০ টাকা করা হয়েছে। দুই সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের উপবৃত্তি ৩০০ টাকা, তিন সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের উপবৃত্তি ৪০০ টাকা এবং চার সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের উপবৃত্তি ৫০০ টাকা করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....