• রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৬:১১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
যখন আমি প্রকৃতির নিয়মে বুড়িয়ে যাবো সবই তাঁর দান, সুমহান! জানেন, পুত্র সন্তান জন্মালেই কেন পিতার হাতে খুন হতে হয় নির্মমভাবে! উখিয়ায় রাজাপালং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস পালিত মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের জোয়ান কতৃক, ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ রোহিংগা নাগরিক ধৃত উখিয়ার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু বক্কর ছিদ্দিককে হাজার মানুষের ভালবাসা ও রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন উখিয়ায় পাহাড়ধ্বস প্রবণ এলাকায় ইউএনও’র সতর্কতা, জরুরী প্রয়োজনে 01882160082 পানি নিষ্কাশনের একমাত্র ড্রেনেজটি বন্ধ করে দেওয়ায়, উখিয়ার মালভিটা পাড়ার শত শত ঘর বাড়ি কোমর পানিতে সয়লাব ” ১১নং মঘাদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শাহীনুল কাদের চৌধুরী। বাংলাদেশে সংক্রমণের ৮০ শতাংশই ভারতীয় ধরন

সমাজে সৃষ্ট “ইয়াং গ্যাং” ও সমাজ বাস্তবতার একান্ত উপলব্ধি।

admin / ৫০ মিনিট
আপডেট সোমবার, ৩১ মে, ২০২১

 

এম আর আয়াজ রবি।

ইদানিং উখিয়া টেকনাফের একটি আলোচিত ভয়ংকর নাম ” ইয়াং গ্যাং” বা ‘কিশোর গ্যাং’! কারা এই জঘন্য কিশোর গ্যাং এর সদস্য? আমরা আমাদের চতুপার্শ্বে চোখ বুলালে সহজেই চিহ্নিত করতে পারব যে সেই কিশোর গ্যাং এর সদস্যরা কারা! নিশ্চয়ই তারা ভিন্নগ্রহের এলিয়েন বা অন্যকোন মানুষ নয়। তারা আমাদের সামাজিক বাস্তবতায় গড়ে উঠা কিছু তরুন, কিশোরের দল। যাদেরকে আমরাই আমাদের বিভিন্ন কাজে সহায়ক শক্তিরুপে গড়ে তোলার অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে আমাদের অভীষ্ট স্বার্থ উদ্ধারের হাতিয়ার হিসেবে গ্রহন করি। তাদেরকে আমরা বিভিন্ন নেতা, দল ও সংগঠনের সদস্য হিসেবে গ্রহন করি, পরে রাজনীতিবিদদের বিভিন্ন ভাল-মন্দ কাজের ‘ক্রীড়নক’ হিসেবে ব্যবহার করি। তারা আমাদের ছত্রছায়ায় দিনে দিনে পেশি শক্তি হিসেবে নিজেদের আবির্ভূত করে একটা সময়ে যে গন্ডীর ভিতরে আবদ্ধ থেকে বেড়ে উঠে, সে গন্ডীর বাইরে গিয়ে তাদের কাছে শক্তিমত্তা, পেশিশক্তি, অন্যান্য শক্তিসামর্থ্য জানান দিতে থাকে। তখন তারা যাদের ছত্রছায়ায় এত দিন লালিত হয়ে আসছিল, এখন তাদের ডিংগীয়ে বা তাদেরকে সাথে করে আরও বড় বড় মিশন হাতে নিতে আর তাদের হাত ও অন্তকরন কাঁপেনা। ইতিমধ্যে তারা বিভিন্ন অপরাধে জড়িত হয়ে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, দাংগা, হাংগামা, ছিনতাই, রাহাজানি, ইভটিজিং, মাদক, ইয়াবাসহ বিভিন্ন অপরাধমুলক কাজে ‘হাতেখড়ি’ দিয়ে একদাপ এগিয়ে গিয়ে নিজেদের অপরাধকর্মে সিদ্ধিতা লাভের তকমা পেয়ে যায়। তাই তারা সহজেই যেকোন অপরাধ কর্মে জড়িয়ে পড়ে। সমাজে অরাজকতা সৃষ্টি হয়। সমাজ রসাতলে যায়, যা জাতি হিসেবে আমাদের জন্য এক স্বাক্ষাৎ অশনিসংকেত!!

আমরা যে যাই-ই বলিনা কেন, যতদিন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলসমুহ, বিভিন্নদলের অংগ সংগঠন সমুহ, এলাকার জনপ্রতিনিধি বা ছাত্র সংগঠনসমুহের ‘দল ভারী’ করার প্রতিযোগিতার লাগাম টানতে বা বন্ধ করতে পারবেননা, ততদিন বিভিন্ন গ্রুপ, উপগ্রুপ সমাজে আধিপত্য বিস্তারের অভিপ্রায়ে নেতা, পাতিনেতা, উপনেতাদের হয়ে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ড করতেই থাকবে। আপনি খোঁজ নিয়ে দেখুন, ইয়াং গ্যাং গ্রুপের সাথে যারা জড়িত, যারা পৃষ্টপোষক তারা প্রায় সকলেই মাদক, ইয়াবা, ইভটিজিং, ছিনতাই, অপহরণ, ধাপ্পাবাজীসহ হেন অপরাধ নেই তারা জড়িত নয়!! যেসব এলাকায় এরুপ ইয়াং গ্যাং আছে, আশেপাশের লোকদের জিজ্ঞেস করলেই তারা কারা, তাদের মদদদাতা কারা, কারা তাদেরকে পুতুল হিসেবে ব্যবহার করছে, তাদেরকে দিয়ে স্বার্থ হাসিল করছে- সবই বের হয়ে আসবে।

করোনা অতিমারীর কারনে দীর্ঘদিন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার কারনে সমাজে, এলাকায় এরুপ অপরাধ সংগঠিত করার নিমিত্তে বিভিন্ন “গ্যাং” সৃষ্টি হতে থাকবে। এ ব্যাপারে আমাদের সবাইকে আরও দায়িত্বশীল ও অভিভাবকদের আরও সচেতন হতে হবে। এরুপ গ্যাং এর সদস্যদের মধ্যে গনসচেতনতা তৈরি করতে হবে। যারা ঐ সমস্ত গ্যাং এর সাথে জড়িত হচ্ছে, তাদেরকে নিয়ে কাউন্সিলিং এর ব্যবস্থা করতে হবে। উখিয়ার বিভিন্ন পয়েন্টে মাথাচাড়া দিয়ে উঠা কিশোর গ্যাং এর লিডার গুলোকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনলেই পরিবর্তন হতে পারে শত কিশোরের আগামীর ভবিষ্যত। শুধু শাস্তি বা জেল নয়, কাউন্সিলিং ও হতে পারে গ্যাং জীবনের আমূল পরিবর্তন। সাথে নৈতিকতা শিক্ষার বিকল্প নেই। মনে রাখতে হবে, এ দেশ, এ জনপদ, এ এলাকা, এ সমাজ আমাদের সকলের।আসুন আমরা সবাই মিলে, প্রশাসনের পাশাপাশি নিজেরাই সচেতন হই, আইন শৃংখলা বাহিনীকে, প্রশাসনকে সঠিক তথ্য, উপাত্ত, গাইডলাইন দিয়ে সহযোগিতা করি, অকালে ঝরে যাওয়া মুকুলকে সঠিকভাবে বেড়ে উঠতে উর্বরতা বৃদ্ধির উপকরণ সরবরাহ করি। ধন্যবাদ সবাইকে।

লেখকঃ প্রেসিডেন্ট- বিএমএসএফ, উখিয়া উপজেলা ও ভাইস প্রেসিডেন্ট- উপজেলা প্রেসক্লাব উখিয়া।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর....