• শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৪৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, কথিত প্রেমিক কক্সবাজারের রেজা চট্টগ্রামে আটক ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল এ জনপদের চাহিদা, আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরণে সক্ষম? নাকি শুধুই গতানুগতিক!

উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের ৪টি ওয়ার্ডকে রেডজোন ঘোষণা

AnonymousFox_bwo / ২৮৫ মিনিট
আপডেট বুধবার, ২ জুন, ২০২১

আইকন নিউজ  ডেস্কঃ

কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলায় করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় রাজাপালং ইউনিয়নের ২,৫,৬ ও ৯  এই চারটি ওয়ার্ডকে রেডজোন ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ বুধবার দিনের প্রথম প্রহর রাত ১২টা এক মিনিটি  মিনিট থেকে তা কার্যকর করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার উখিয়া উপজেলা কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘গত ২৩ মে থেকে কার্যকর কঠোর বিধি-নিষেধ নিয়ন্ত্রণের মেয়াদ আগামী ৬ জুন পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। পাশাপাশি রেডজোন ঘোষিত এলাকায় সরকার আরোপিত বিধি-নিষেধগুলো কঠিনভাবে কার্যকর করা হচ্ছে। এ বিষয়ে কোনো ছাড় দেওয়া হচ্ছে না। প্রশাসন এবং সংশ্লিষ্টরা বর্তমানে মাঠে তৎপর আছে।’

উখিয়া উপজেলা কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আজ ২  জুন দিনের শুরু অর্থাৎ প্রথম প্রহর রাত ১২ টা এক মিনিট থেকে আগামী ৬ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত উখিয়া উপজেলার সদর রাজাপালং ইউনিয়নের ২, ৫, ৬ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড রেডজোনের আওতায় থাকবে। এ চারটি ওয়ার্ডের আওতাধীন এলাকা বা পাড়া-মহল্লাগুলো হলো- বৃহত্তর কুতুংপালং, পাতাবাড়ি, দিঘিলিয়া, সিকদারবিল, খিলাতলী, টেকপাড়া, পুকুরিয়া,  হাজীপাড়া ও  ফলিয়াপাড়া। রেডজোনে কঠোর লকডাউনও কার্যকর থাকবে। সবধরনের গণজমায়েত নিষিদ্ধ করে রেডজোন ঘোষিত এলাকায় বসবাসকারী লোকজনকে নিজ নিজ ঘরের বাইরে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে। টমটম (ইজিবাইক), সিএনজি অটোরিকশাসহ সবধরনের যানবাহন ও গণপরিবহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া, রেডজোন এলাকায় আজ থেকে সবধরনের বেসরকারি ও এনজিও সংস্থার অফিস কার্যক্রম বন্ধ আছে। দোকানপাট, শপিংমল, মার্কেট বন্ধ। তবে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত আকারে সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শুধু কাঁচাবাজার, মুদি দোকান ও ওষুধের দোকান খোলা থাকবে।

উল্লেখ্য, গত ৩১ মে পর্যন্ত উখিয়া উপজেলায় কক্সবাজার জেলার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দুই হাজার ২৬৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। তারমধ্যে স্থানীয় বাসিন্দা এক হাজার ২৫০ জন এবং রোহিঙ্গা এক হাজার ১৪ জন। গতকাল মঙ্গলবারও ৩৬ জন রোহিঙ্গার নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়।

উখিয়া উপজেলায় এ পর্যন্ত ৩২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী মারা গেছেন। তারমধ্যে ১৭ জন রোহিঙ্গা ও ১৫ জন স্থানীয় বাসিন্দা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....