• রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৩৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
পাহাড় খেকো সিন্ডিকেটের হাতে উখিয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা পর্যুদস্ত, থানায় মামলা। উখিয়া কুতুপালং বাজার ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিঃ এর নির্বাচনে-জানে আলম সভাপতি ও মোঃ আলী সাঃ সম্পাদক নির্বাচিত। উখিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম নুরুল ইসলাম চৌধুরী স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা-২০২২ অনুষ্ঠিত ফলিয়াপাড়া আলিমুদ্দীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিদায় অনুষ্ঠান সম্পন্ন। মানসিক ভারসাম্যহীন লিল মিয়া দীর্ঘ ২০ বছর পর পরিবারের কাছে ফিরে তাক লাগিয়ে দিল। টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ২৭৮ কার্টুন বিদেশী সিগারেট পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার উখিয়ার থাইংখালী মহিলা হিফ্জ খানায় এ বছরে ৫ জন হিফজ সম্পন্নকারীদের সংবর্ধনা সম্পন্ন নাইক্ষ্যংছড়ি তুমব্রু সীমান্তে নিহত ডিজিএফআই কর্মকর্তা রেজওয়ান রুশদীর দাফন সম্পন্ন কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জাতীয় দৈনিক ভোরের চেতনা পত্রিকার ২৪তম প্রতিষ্টাবার্ষিকী। প্রেমের ভিডিও ধারনের জেরে দপ্তরি হাফেজ দিদার খুন বলে সন্দেহ-ব্যাপারটা পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

জাফরুল্লাহকে উল্টাপাল্টা কথা না বলার অনুরোধ মির্জা ফখরুলের

AnonymousFox_bwo / ২৬৩ মিনিট
আপডেট সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে বিভ্রান্তিকর ও উল্টাপাল্টা মন্তব্য না করার অনুরোধ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মির্জা ফখরুল বলেন, জাফরুল্লাহ সাহেবের বয়স হয়ে গেছে, তিনি অত্যন্ত সম্মানিত ও গুণী-জ্ঞানী একজন মানুষ। বয়স হলে কিছু উল্টাপাল্টা কথা উনি বলতেই পারেন। তবে এক্ষেত্রে তার তারেক রহমান সংক্রান্ত মন্তব্যটি যুক্তিসঙ্গত হয়নি। তিনি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের একজন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, তার এ ধরনের মন্তব্য অনভিপ্রেত। তার এমন মন্তব্যে দেশের গণতন্ত্রবিরোধী শক্তিই মূলত লাভবান হবে। আমি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে অনুরোধ জানাব, বিভ্রান্তিকর কথা না বলতে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, আমরা আশাবাদী যে, তারেক রহমানের নেতৃত্বে বিএনপি সুসংগঠিত হবে এবং আমরা একটা কার্যকর আন্দোলন করতে পারবো। যার মধ্য দিয়ে এই স্বৈরাচার ও ফ্যাসিস্ট সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা যায়।

এসময় মির্জা ফখরুল আরও বলেন, প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানই স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষণা এবং যুদ্ধের মাঠে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। সরকার বর্তমান ডেঙ্গু মোকাবেলা ও দেশের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে জিয়ার মাজার প্রসঙ্গে অহেতুক অপ্রাসঙ্গিক বিতর্কের অবতারণা করছে। জনগণের দৃষ্টিকে অন্যদিকে সরানোই এই মুহূর্তে সরকারের আসল উদ্দেশ্য। আওয়ামী লীগ প্রতারণা করে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চাইছে। জিয়াউর রহমানের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট জাতিকে দেখানো হয়েছে, এ নিয়ে এরপর অন্য কোনও বিতর্ক থাকতে পারে না। মাজার-কবর-লাশ এসব নিয়ে রাজনীতি না করে কীভাবে মরণাপন্ন দেশ ও মানুষকে বাঁচানো যায় সরকারকে এখন সেদিকেই নজর দেয়া উচিত।

উল্লেখ্য, গত ২ সেপ্টেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান পদে তারেক রহমানকে দায়িত্ব প্রদানের সমালোচনা করে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছিলেন, তারেক রহমানকে দায়িত্ব দিতে বিএনপির গঠনতন্ত্র মানা হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর....