• রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৪১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
প্রসংগঃ সীমান্ত এলাকায় জন্মনিবন্ধন কার্যক্রম এবং স্থানীয়দের অসহ্য যন্ত্রনা ও বিড়ম্বনা ব্রেইন টিউমার আক্রান্ত তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী টুম্পাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন! প্রেক্ষিতঃ সীমান্তবর্তী এলাকার বিদ্যমান সমাস্যা ও জন্ম নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় স্থানীয়দের অসহ্য বিড়ম্বনা ইউপি নির্বাচনের হাওয়া…. পালংখালী চেয়ারম্যান প্রার্থী ইন্জিনিয়ার রবিউল হোসেনের ১০ ইশতেহার ঘোষণা উখিয়া প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পণ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ ও আমার বক্তব্য উখিয়ার সিকদার বিলের তারেক ইয়াবাসহ লোহাগাড়ায় গ্রেফতার তাবৎ জীবনে জীবনসঙ্গীর প্রতি ভালবাসা অফুরান কালের বিবর্তনে বিলাসিতার রকম ফের এনজিও থেকে স্থানীয়দের ছাঁটাইয়ের হিড়িক, কিন্তু ভ্যানগার্ড কেউ নেই উখিয়া প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পণ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ ও আমার বক্তব্য

থানায় গিয়ে স্ত্রী জানলেন, স্বামী রাতে কোথায় যেতেন

admin / ৫৭ মিনিট
আপডেট সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আইকন নিউজ ডেস্কঃ 

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে অতিরিক্ত যৌন উত্তেজক ওষুধ সেবনে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার ভোর ৫টার দিকে যৌনপল্লীর এক পতিতার ঘরে এ ঘটনা ঘটে। মৃত ব্যক্তির নাম দেলোয়ার হোসেন বাবু। তার বাড়ি ঢাকার ওয়ারী এলাকায়। তিনি পেশায় একজন ইলেকট্রনিক ব্যবসায়ী।

জানা গেছে, দেলোয়ার হোসেন বৃহস্পতিবার রাতে যৌনপল্লীতে আসেন। বিভিন্ন স্থানে ঘোরাফেরা করে তিনি ভোর ৪টার দিকে পল্লীর আনোয়ারা বাড়িয়ালির ভাড়াটিয়া জ্যোৎস্না নামে এক পতিতার ঘরে প্রবেশ করেন।

এর আগে তিনি স্থানীয় এক দোকান থেকে যৌন উত্তেজক ওষুধ কিনে সেবন করেন। এতে প্রেসার বেড়ে গিয়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

ভোর ৫টার দিকে তার অবস্থা বেগতিক হয়ে পড়লে যৌনকর্মী জ্যোৎস্না আশপাশের লোকজনকে ডাকাডাকি করেন। এ সময় কয়েকজন এসে তাকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

গোয়ালন্দ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক চন্দন কুমার জানান, দেলোয়ার হোসেন বাবু নামের ওই ব্যক্তিকে ভোরে হাসপাতালে আনা হয়। তবে হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়। পরে আমরা বিষয়টি পুলিশকে জানাই।

গোয়ালন্দ থানার এসআই দেওয়ান শামীম আহমেদ জানান, আমরা হাসপাতালে গিয়ে মৃত ব্যক্তির পকেট থেকে তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন উদ্ধার করে পরিবারকে খবর দিই। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে মৃতের স্ত্রী, দুই ছেলেমেয়ে ও অন্যান্য স্বজন থানায় আসেন।

থানায় আলাপকালে দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী জানান, তার স্বামী হার্টের রোগী ছিলেন। তার বুকে রিং পরানো রয়েছে। কিছু দিন আগে অসুস্থ হয়ে সিসিইউতে চার দিন ভর্তি ছিলেন। তবে তিনি মাঝে মধ্যেই ব্যবসায়িক কাজের কথা বলে রাতে বাড়িতে ফিরতেন না।

গোয়ালন্দঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান,আমাদের ধারণা— অতিরিক্ত যৌন উত্তেজক ওষুধ সেবনের কারণে তিনি মারা গেছেন। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। সুত্রঃwww.daily-bangladesh.com


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর....