• রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
প্রসংগঃ সীমান্ত এলাকায় জন্মনিবন্ধন কার্যক্রম এবং স্থানীয়দের অসহ্য যন্ত্রনা ও বিড়ম্বনা ব্রেইন টিউমার আক্রান্ত তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী টুম্পাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন! প্রেক্ষিতঃ সীমান্তবর্তী এলাকার বিদ্যমান সমাস্যা ও জন্ম নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় স্থানীয়দের অসহ্য বিড়ম্বনা ইউপি নির্বাচনের হাওয়া…. পালংখালী চেয়ারম্যান প্রার্থী ইন্জিনিয়ার রবিউল হোসেনের ১০ ইশতেহার ঘোষণা উখিয়া প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পণ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ ও আমার বক্তব্য উখিয়ার সিকদার বিলের তারেক ইয়াবাসহ লোহাগাড়ায় গ্রেফতার তাবৎ জীবনে জীবনসঙ্গীর প্রতি ভালবাসা অফুরান কালের বিবর্তনে বিলাসিতার রকম ফের এনজিও থেকে স্থানীয়দের ছাঁটাইয়ের হিড়িক, কিন্তু ভ্যানগার্ড কেউ নেই উখিয়া প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পণ শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ ও আমার বক্তব্য

মানবতার মঙ্গলের জন্য শুরু হোক ‘চেইন অব হ্যাপিনেস’

admin / ৫৬ মিনিট
আপডেট সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আইকন নিউজ ডেস্কঃ 

জীবনে এমন কিছু ভাল কাজের সাথে নিজকে জড়িয়ে রাখুন, যে কাজের প্রতিদান বা শ্রমের মুল্য গ্রহণ করা যায়না বা শ্রমের মুল্য তাৎক্ষণিক না নিয়ে অনুরুপ ভাল কাজের বীজ বপন করে চলার নির্দেশনা দেবেন, যা সদকায়ে জারিয়া হয়ে চলমান থাকবে দেশ থেকে দেশান্তরে। সেসব মানবীয় কাজগুলো মানুষকে মানবিক হতে সহায়তা করবে এবং  নিশ্চয়ই বংশপরম্পরায় সামাজিক শুদ্ধতার স্কোপ সৃষ্টি করে চলবে অপ্রতিরোধ্য গতিতে। নিম্নে এরুপ কিছু কাজের নমুনা উপস্থাপন করা হলঃ

হাইওয়ে রোডে চলতে থাকা একটা গাড়ি হঠাৎ করে যান্ত্রিক গোলযোগে বন্ধ হয়ে গেলো। গাড়ির মালিক অল্প বয়স্কা এক সুন্দরী মেয়ে। একে তো সন্ধ্যা, তার উপর গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি। একা একটা মেয়েকে গাড়ির পাশে এভাবে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে এক যুবক এগিয়ে আসলো তার দিকে। “ আমার নাম জিসান। আপনার গাড়িতে কি কোনো প্রবলেম হয়েছে?” “ হ্যাঁ, হঠাৎ করে ইঞ্জিনটা বন্ধ হয়ে গেল।এখন আর স্টার্ট নিচ্ছেনা! “
“ আপনি দুশ্চিন্তা করবেন না, গাড়িতে গিয়ে বসুন আমি সাহায্য করছি।”

ছেলেটা গাড়ির বনেট খুলে ভিতরটা দেখলো এবং সমস্যা ধরতে পেরে সেটার সমাধান করে দিলো।
মেয়েটা খুশি হয়ে ছেলেটাকে কিছু টাকা দিতে চাইলো। কিন্তু ছেলেটা টাকা নিতে অস্বীকার করলো।
“ এটা আমার প্রফেশন নয়। তাই এই টাকা আমি নিতে পারবোনা। কোনো একদিন আমাকেও একজন এভাবে উপকার করেছিলো এবং বলেছিলো সুযোগ আসলে যেন আমিও কারো উপকার করি এবং এই চেইন অফ হ্যাপিনেস টা ধরে রাখি। তেমনি, আপনিও যদি কোনোদিন কারো বিপদ দেখে এমন ভাবে সাহায্য করেন এবং চেইন অফ হ্যাপিনেস টা ধরে রাখেন, তাহলেই আমি সবথেকে বেশী খুশী হবো এবং আমার এই উপকারের আসল উদ্দেশ্য সফল হবে।”
মেয়েটা খুশি মনে বিদায় নিলো।
কিছু দিন পরের ঘটনা। মেয়েটা একটা কফি শপের পাশ দিয়ে যাচ্ছিলো। হঠাৎ লক্ষ্য করলো, প্রায় সাত মাসের এক অন্ত:সত্ত্বা মেয়ে কফি শপে কাজ করছে। মেয়েটা তাকে ডেকে কিছু স্ন্যাক্স অর্ডার করলো।অন্ত:স্বত্বা মেয়েটা এত হাসি খুশি ভাবে কাজ করছে যে মুখ দেখে বোঝার উপায় নেই সে অন্ত:স্বত্তা! যাই হোক, স্ন্যাক্স গুলো নিয়ে গাড়িতে ওঠার আগে মেয়েটা টেবিলের উপর একটা খাম রেখে গেলো। কফি শপের মেয়েটা ঘুরে এসে বিল নেওয়ার সময় দেখলো বিলের পাশে একটা খাম রাখা আছে। মেয়েটা খাম টা খুলল। খামের ভিতরে দশ হাজার টাকা আর একটা ছোট চিরকুট রাখা। মেয়েটা পড়তে শুরু করলো। “তোমাকে দেখে মনে হচ্ছে তুমি অন্ত:স্বত্তা। এই অবস্থাতেও তুমি কাজ করছো! বুঝতে পারছি যে, এই সময়ে তোমার টাকার খুব প্রয়োজন। আমি কে, সেটা জানার দরকার নেই। যদি পারো, তাহলে অন্য কারো বিপদে তাকে সাহায্য করে এই চেইন অফ হ্যাপিনেস টা ধরে রেখো।”
কাজ শেষে মেয়েটা খামসহ ঘরে ফিরলো। ঘরে ঢুকে দেখলো তার স্বামী চিন্তিত মুখে বসে আছে। মেয়েটা পেছন থেকে স্বামীকে জড়িয়ে ধরে বলল, “তোমাকে আর চিন্তা করতে হবেনা। আমার ডেলিভারির টাকা জোগাড় হয়ে গেছে। আই লাভ ইউ মাই হাসব্যান্ড।

চেইন অফ হ্যাপিনেস শুরু হোক এখন থেকেই। বিশ্বাস করুণ, যে ভালোবাসা আপনি ছড়িয়ে দিয়েছেন ঘুরে ফিরে একদিন তা আপনার কাছেই আবার ফিরে আসবে, ফিরে আসতে বাধ্য।
সবাই খুব ভালো থাকুন, আর অন্যকেও ভালো রাখুন, ‘চেইন অব হ্যাপিনেস’ দিয়ে পুরো পৃথিবী পরিশুদ্দতায় ভরে উঠুক, মানবতার ঝান্ডা ফতফত করে উড্ডীন হোক দেশ থেকে দেশান্তরে। সবাইকে ধন্যবাদ।

আইকন নিউজটুডে/আর/০৬০৯২০২১


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর....