• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৪২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, কথিত প্রেমিক কক্সবাজারের রেজা চট্টগ্রামে আটক ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল এ জনপদের চাহিদা, আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরণে সক্ষম? নাকি শুধুই গতানুগতিক!

আজকের দিনে সাংবাদিক হওয়া কঠিন, বিপজ্জনক: মারিয়া রেসা

AnonymousFox_bwo / ২৪৯ মিনিট
আপডেট রবিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২১

আইকন নিউজ ডেস্কঃ 

ফিলিপাইনের নোবেল বিজয়ী সাংবাদিক মারিয়া রেসা শান্তিতে পাওয়া নোবেল পৃথিবীর সব সাংবাদিককে উৎসর্গ করেছেন। তিনি বলেছেন, তার এই নোবেল শান্তি পুরস্কার পৃথিবীর সব সাংবাদিকের। এছাড়া সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় নিজের সংগ্রাম অব্যাহত রাখবেন বলে প্রতিজ্ঞা করেছেন তিনি।

এএফপিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রেসা বলেন, সত্যিই এই পুরস্কার পৃথিবীর সমস্ত সাংবাদিকের। বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমাদের সাহায্য দরকার। আজকের দিনে সাংবাদিক হওয়া খুব কঠিন এবং বিপজ্জনক।

৫৮ বছর বয়সী রেসা বলেছেন, এই পুরস্কার তার এবং ফিলিপাইনে কাজ করা অন্য সাংবাদিকদের জন্য শারীরিক এবং অনলাইন আক্রমণ থেকে বাঁচাতে রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করবে।

এই পুরস্কার অ্যাড্রেনালিন ইনজেকশনের মতো জানিয়ে তিনি বলেন, এই যে ‘তাদের বিরুদ্ধে আমরা’ এটা কিন্তু সাংবাদিকরা তৈরি করেনি। এটা তৈরি করেছে ক্ষমতায় থাকা লোকজন যারা নেতৃত্বকে সমাজে বিভাজন তৈরিতে ব্যবহার করতে চায়। আমি আশা করি, এই পুরস্কার সাংবাদিকদের নির্ভীকভাবে কাজ করতে উৎসাহ দেবে।

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে ও তার সরকারের নীতির কঠোর সমালোচনাকারী রেসা, বিশেষ করে মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর অবস্থানের।

অধিকার কর্মীরা বলছেন, ফিলিপাইনে মাদকবিরোধী অভিযানে হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করা হয়েছে, যাদের বেশিরভাগই গরীব মানুষ। দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ওইসব হত্যাকাণ্ডের নৃশংস ছবি প্রকাশ করেছে এবং এর বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। র‌্যাপলার ওয়েবসাইটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মারিয়া রেসা।

এছাড়া রক্তাক্ত ওই অভিযানকে সম্ভাব্য মানবতাবিরোধী অপরাধ বিবেচনায় আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের বিচারকও পুর্ণাঙ্গ তদন্তের অনুমোদন দিয়েছেন। অন্যান্য সংবাদমাধ্যমও দুতের্তের নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে ফিলিপাইন্স ডেইলি ইনকোয়ারার ও টেলিভিশ এবিএস-সিবিএনের লাইসেন্স বাতিল করে গতবছর।

এ প্রসঙ্গে মারিয়া রেসা বলেন, আমাদের বাঁচার আর কোনো উপায় নেই… তাই আমাদেরকে প্রতিরোধ করা সহজ। গত দুই বছরের কম সময়ের মধ্যে আমার বিরুদ্ধে ১০টি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে।

তিনি জানান, এখনো তার বিরুদ্ধে সাতটি মামলা আছে। এর মধ্যে কর ফাঁকির মামলাও আছে, যেটাকে তিনি হাস্যকর বলেছেন এবং এই মামলায় জিতবেন বলে মনে করেন। এছাড়া তার বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....