• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, কথিত প্রেমিক কক্সবাজারের রেজা চট্টগ্রামে আটক ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল এ জনপদের চাহিদা, আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরণে সক্ষম? নাকি শুধুই গতানুগতিক!

মায়ের পরকীয়ার বলী হলেন মাদ্রাসা ছাত্রী মাইশা

AnonymousFox_bwo / ৩৭৮ মিনিট
আপডেট রবিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২১

আইকন নিউজ ডেস্কঃ

মাইশা আক্তার ( ১৮ ), পড়েন মহিলা মাদ্রাসার মেশকাত জামাতে।
খুবই বিচক্ষণ আর দুর্দশীতা সে। অনেক ভাল মেয়ে।
মাইশার আম্মা স্বপ্না বেগম। পিতা মো:আব্দুল্লাহ।

ইদানিং মাইশার কাছে তার মায়ের আচরন অনেকটা ভিন্ন লাগছে। কেননা মাইশাদের বাড়িতে মাইশার মায়ের ফুফাতো ভাইয়ের ইদানিং খুব আসা যাওয়া। মাইশা বিষয়টি অন্য ভাবে আচ করে একটু তদন্তে নামেন। অবশেষে ” মাইশা বুঝতে পারে মাইশার মায়ের অবৈধ পরকীয়ার সম্পর্ক রয়েছে ঐ লোকের সাথে।

মাইশা ধার্মিক মেয়ে তাই চিন্তা করলো” বাবাকে বিষয়টি না জানিয়ে – মা, কে ধর্মীয় ভাবে বুঝাতে হবে। এজন্য মাইশা তার মা কে আল্লাহর ভয় দেখান। ও পরকীয়ার শাস্তি জানান। কিন্তু মাইশার এ কথাগুলি তার মায়ের কাছে অগ্নি ফুলঙ্গের মত লাগলো । মাইশা মাদ্রাসায় চলে যাওয়ার পর স্বপ্না তার পরকীয়া স্বামীর সাথে বিষয়টি আলোচনা করে।
এবং তারা মাইশাকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয়।

বিকেল ৩ টা।
আসরের আজান হবে। মাইশা মাদ্রাসা থেকে ফিরে আসে বাড়িতে। মাইশার বাবা আব্দুল্লাহ মিয়া চাকরীর সুবাদে বাড়ির বাহিরে থাকার কারনে বাড়ি একদমই ফাঁকা ছিল। মাইশা যেই মাত্র বাড়িতে আসলো। পিছন থেকে বাড়ির দরজা গেইট বন্ধ করে দেয়া হলো। হায়েনার মত নিস্পাপ অসহায় মাইশার উপর জাপিয়ে পড়ে মাইশার মায়ের সেই পরকীয়া স্বামী। টেনে হেচড়ে গায়ের বোরকা খুলে মায়ের সামনেই ধর্ষণ করলো মাইশাকে। ধর্ষণ করার পর মাইশার দু পায়ে চেপে ধরলো পরকীয়াধারী সেই লোক। আর মাইশার গলা টিপে শ্বাসরুদ্ধ করে মাইশাকে হত্যা করলো মাইশাকে জন্ম দেয়া মাইশার আপন মা।

ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার,
কিশোরগঞ্জ জেলার, করিমগঞ্জ থানায়!

আর এভাবেই হত্যা করলো নিজের মা আপন সন্তান মেয়েকে। তার অন্যায় সে পরকীয়ার বিষয়টি জেনে গিয়েছিল। একটি পরকীয়া কত ভয়ানক হতে পারে তা লিখতেই আমার শরীর কাপছিল…পরকীয়া একটি সামাজিক ব্যাধি, একমাত্র ধর্মীয় নিয়ম নীতিই পারে এটি নির্মূল করতে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....