• শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, কথিত প্রেমিক কক্সবাজারের রেজা চট্টগ্রামে আটক ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল এ জনপদের চাহিদা, আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরণে সক্ষম? নাকি শুধুই গতানুগতিক!

সংগত কারনেই পুরুষ জাতি স্ত্রীর কথাকে প্রাধান্য দেয় ! একটি রম্য রচনা

AnonymousFox_bwo / ২৩২ মিনিট
আপডেট রবিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২১

আইকন নিউজ ডেস্কঃ 

এক রাজা একদিন দেখতে চাইলেন

তার রাজ্যবাসীদের ঘরে কার হুকুম চলে?
স্বামীর… নাকি
স্ত্রীর।
তিনি রাজ্যে ঘোষণা করলেন…
যার ঘরে বউ এর কথা মানা হয় সে রাজপ্রাসাদে এসে একটা করে আপেল নিয়ে যাবে।
আর যার ঘরে স্বামীর কথা চলে সে পাবে একটা ঘোড়া।
পরের দিন সমস্ত রাজ্য বাসী হাজির,
সবাই একটা করে আপেল নিয়ে ঘরে চলে যেতে লাগলো…
রাজা ভাবলেন সন্ধ্যে হয়ে গেল এখনো কি এমন একজন কেও পাওয়া যাবে না যার ঘরে স্বামীর কথা চলে!
এমন সময় একজন এলো লম্বা চওড়া স্বাস্থ্য, ইয়া বড় গোঁফ। সে এসে বললো,
“আমার ঘরে আমারই কথা চলে।”
রাজা বেজায় খুশি হলেন তিনি বললেন,
“যাও, আমার ঘোড়াশাল থেকে সব থেকে ভালো ওই কালো ঘোড়াটা তোমায় দিলাম।”
লোকটা ঘোড়া নিয়ে চলে গেলো।
রাজা খুশি মনে বললেন
“যাক অন্ততপক্ষে একজন তো পাওয়া গেলো”।
কিন্তু কিছুক্ষণ পর দেখা গেল সেই লোকটা ঘোড়া নিয়ে ফিরে এলো এবং বললো,
“রাজা মশাই আমাকে ঘোড়াটা পাল্টে দিন,
আমার বউ বললো যে কালো রং অশুভ,
সাদা শান্তির প্রতীক, তাই সাদা ঘোড়া দিন।”
রাজা রেগে গেলেন…
“তুই ঘোড়া রেখে একটা আপেল নিয়ে এখুনি আমার সামনে থেকে বিদায় হও।”
রাতের বেলা মন্ত্রী এলো, বললো”রাজা মশাই, সবাই তো আপেলই নিলো! আপেলের বদলে আপনি যদি অন্তত পাঁচ কেজি করে চাল দিতেন তো আপনার প্রজাদের কিছু সাশ্রয় হত।”
রাজা বললেন, “আমি ও সেটাই ভেবেছিলাম কিন্তু বড় রানী বললো আপেলই ভালো হবে।”
মন্ত্রী শুধালো, “রাজা মশাই আপনাকেও কি একটা আপেল কেটে দেবো?”
রাজা লজ্জিত হয়ে বললেন,
“সে কথা থাক, আগে বলো তুমি রাজসভায় এই মতামত না দিয়ে এখন কেন দিতে এসেছো এই রাতের বেলায়??”
মন্ত্রীর লাজুক উত্তর,
“আগামীকাল সকালেই বলতাম কিন্তু আমার বউ বললো এখনই যাও আর রাজামশাইকে বুদ্ধিটা এখনই দিয়ে এসো যাতে করে পরের বারে চাল দেওয়ার ঘোষণা দেন উনি।”
রাজা স্বস্তির হাসি হেসে বললেন,
“আপেলটা তুমি নিয়ে যাবে?
নাকি ঘরে পাঠিয়ে দেবো?”

(সংগৃহীত)


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....