• শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৮:২৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল এ জনপদের চাহিদা, আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরণে সক্ষম? নাকি শুধুই গতানুগতিক! ফেসবুকে পরিচয় ও প্রেম-অতপরঃ এক কলেজ শিক্ষিকাকে কলেজ ছাত্রের বিয়ে!

উখিয়া থাইংখালীতে চৌকস বনকর্মকর্তার নেতৃত্বে ঘর উচ্ছেদ করে বনভুমি রক্ষা করার সাহস দেখালেন

AnonymousFox_bwo / ১২৫ মিনিট
আপডেট বৃহস্পতিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২২

আইকন নিউজ ডেস্কঃ

কক্সবাজারের উখিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা গাজী সফিউল আলমের নির্দেশে থাইংখালী বিট কর্মকর্তা রাকিব হোসাইন রাজুর নেতৃত্বে, ভালুখিয়া বিট কর্মকর্তা সাজ্জাদ, মুসার খোলা স্টাফ ও থাইংখালী স্টাফ হেডম্যান ভিলেজারদের সাথে নিয়ে তেলখলা গভীর বনে জবর দখলকারীদের বনভুমির জায়গায় বিচ্ছিন্ন ভাবে তৈরি করা ৫ টা ঘর উচ্ছেদ পূর্বক ২ একর বনভুমির জায়গা জবর দখল মুক্ত করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) সকাল ১১টার দিকে পালংখালীর থাইংখালি বিট তেলখলা বনভূমি এলাকায় উক্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়৷

বনবিভাগের সূত্র জানা যায়, থাইংখালিতে একটি মহল বনবিভাগের যায়গা জবরদখল ক‌রে অবৈধভাবে ঘর নির্মা‌ণ করে পুরাতন রোহিঙ্গাদের ভাড়া দেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে বনসংরক্ষণের দায়িত্বে থাকা চৌকস অফিসার থাইংখালী বিটের কর্মকর্তা রাকিবুল হাসান সাহেবের নেতৃত্বে একদল আভিযানিক দল উক্ত অভিযান পরিচালনা করেন। উক্ত দুঃসাহসিক অভিযানে ৫টি ঘর উচ্ছেদ করে ২ একর বনভূ‌মি উদ্ধার করার কৃতিত্ব অর্জন করেন।

থাইংখালী বিট কর্মকর্তা রাকিব হোসাইন রাজু বলেন, “থাইংখালিতে কিছু ব্যক্তি প্রভাব খাটিয়ে সংরক্ষিত বনের জায়গায় বসতি নির্মাণ করেছিল। যৌথ অভিযানে এসব বসতি উচ্ছেদ করা হয়েছে।”

এবিষয়ে উখিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা গাজী সফিউল আলম বলেন, “বনভূমি অবৈধ দখল ও পাহাড় কেটে স্থাপনা নির্মাণের বিষয়ে বনবিভাগ জিরোট্রলারেন্সে আছে, কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা, কেউ যদি আইন অমান্য করে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে”।

পরবর্তীতে উক্ত প্রতিবেদককে, অপরাধীদের বিরুদ্ধে দেশের প্রচলিত আইনে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করার কথা বনসংরক্ষণে দায়িত্বরতরা অভিহিত করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....