• সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল এ জনপদের চাহিদা, আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরণে সক্ষম? নাকি শুধুই গতানুগতিক! ফেসবুকে পরিচয় ও প্রেম-অতপরঃ এক কলেজ শিক্ষিকাকে কলেজ ছাত্রের বিয়ে! উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা নির্বাচিত। উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল ও সম্মেলন কালঃ সভাপতি ও সাঃসম্পাদক পদে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস। আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই , মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ডঃ শিরীন আখতার। আসন্ন উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি বার্ষিক নির্বাচনে, সভাপতি পদে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী স্পষ্টতঃ এগিয়ে। উখিয়ায় পয়ঃনিষ্কাশন ও পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থার অপ্রতুলতা এবং ময়লা ফেলার নির্দিষ্ট ভাগাড়ের অভাব। দেশে প্রতিবছর পানিতে ডুবে ১৪ হাজারের বেশি শিশুর মৃত্যু হয়। যানযট নিরসন ও বনভুমি রক্ষার্থে কঠোর সিদ্ধান্তে যাচ্ছেন উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

ক্ষুধার যন্ত্রণায় শিশুর কান্নায় অতীষ্ট হয়ে গলা টিপে হত্যা করলেন মা!

AnonymousFox_bwo / ৫৮ মিনিট
আপডেট মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০২২

আইকন নিউজ ডেস্কঃ 

ক্ষুধার যন্ত্রণায় কান্না করায় শিশুকন্যাকে গলা টিপে হত্যা করেছেন তার মা। অভিযুক্ত মা শারমিন আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সকালে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ডিগ্রিরচরের আলমগীরের ইটভাটায়। নিহত শিশুর নাম জান্নাতুল। অভাবের তাড়নায় শিশুকন্যাকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন শারমিন।

ফতুল্লা থানা পুলিশ জানিয়েছে,  ২০১৯ সালে ফতুল্লার পাগলা এলাকার শাকিলের সঙ্গে বিয়ে হয় শারমিনের। তাদের সংসারে জন্ম নেয় জান্নাতুল। মেয়ের বয়স যখন ছয় মাস, তখন মা-মেয়েকে ফেলে আবার বিয়ে করে অন্যত্র চলে যায় শাকিল। স্ত্রী শারমিন ও মেয়ে জান্নাতুলের খোঁজ নিত না সে। এরপর মেয়েকে নিয়ে শারমিন তার বাবার বাড়িতে থাকত। মা-বাবাও তাকে গালাগাল করতেন।

ঠিকমতো খেতে দিতেন না। শিশুটিও ক্ষুধার যন্ত্রণায় কান্না করতো।

 

শারমিন জানিয়েছে, সোমবার সকালে ক্ষুধার যন্ত্রণায় মেয়ে কান্না শুরু করলে তার গলা টিপে ধরে সে। একপর্যায়ে মেয়ে নড়াচড়া বন্ধ করে দিলে শারমিন তার বাবার বাসায় এসে মাকে ঘটনা জানায়। তখন তার মা তাকে নিয়ে স্থানীয় ফার্মেসিতে যায়। ফার্মেসির লোকজন তাদের নারায়ণগঞ্জ দেড়শ’ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল পাঠান। সেখানে গেলে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার এসআই হুমায়ূন কবির বলেন, মৃত শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হয়। তারা পুলিশকে ঘটনাটি জানায়। পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে শারমিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে নিজেই গলা টিপে মেয়েকে হত্যা করেছে বলে জানায়। তখন পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....