• সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত উখিয়া স্পেশালাইজড হসপিটাল এ জনপদের চাহিদা, আশা-আকাঙ্ক্ষা পুরণে সক্ষম? নাকি শুধুই গতানুগতিক! ফেসবুকে পরিচয় ও প্রেম-অতপরঃ এক কলেজ শিক্ষিকাকে কলেজ ছাত্রের বিয়ে! উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা নির্বাচিত। উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল ও সম্মেলন কালঃ সভাপতি ও সাঃসম্পাদক পদে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস। আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই , মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ডঃ শিরীন আখতার। আসন্ন উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি বার্ষিক নির্বাচনে, সভাপতি পদে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী স্পষ্টতঃ এগিয়ে। উখিয়ায় পয়ঃনিষ্কাশন ও পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থার অপ্রতুলতা এবং ময়লা ফেলার নির্দিষ্ট ভাগাড়ের অভাব। দেশে প্রতিবছর পানিতে ডুবে ১৪ হাজারের বেশি শিশুর মৃত্যু হয়। যানযট নিরসন ও বনভুমি রক্ষার্থে কঠোর সিদ্ধান্তে যাচ্ছেন উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

আসন্ন উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি বার্ষিক নির্বাচনে, সভাপতি পদে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী স্পষ্টতঃ এগিয়ে।

AnonymousFox_bwo / ৭১ মিনিট
আপডেট মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০২২

এম আর আয়াজ রবি।

কথায় বলে, He is the real leader, who knows the ways, goes the ways & shows the ways’! উখিয়ার মাটি ও মানুষের অকৃত্রিম বন্ধু, মহান মুক্তিযুদ্ধ, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মানে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব অক্ষুন্ন রাখতে এবং দেশের উন্নয়ন, অগ্রগতি, প্রগতির ধারক ও বাহক হিসেবে গত দেড় দশক ধরে উখিয়ার তৃণমূলের অবিংসবদিত নেতা জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী।

জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী এখন একটি নাম নয় তিনি এখন একটি সংগঠন! তিনি কষ্টি পাথরে যাছাইকৃত মুজিব রণাঙ্গনের অকুতোভয় সৈনিক! তিনি একজন নৈতিকতার মানদণ্ডে উত্তীর্ণ সৎ, আদর্শবান, নির্লোভ, নিরহংকার, নিভৃতচারী, সব্যসাচী, দ্যূতিময় ব্যক্তিত্বের অধিকারী, বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্নেহধন্য, আশীর্বাদপুষ্ট,ডাইনামিক লাইভ লিজেন্ড, তিনি এখন বাঁধ ভাঙ্গা জনতার সাহস, রাজনৈতিক নেতাকর্মীর প্রেরণার উৎস ও বাতিঘর। উখিয়ার গণমানুষের আস্থা ও বিশ্বাসের শেষ ঠিকানা ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ উখিয়া উপজেলা শাখার নির্বাচিত সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক,০৪ নং রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের হ্যাট্রিক সফল চেয়ারম্যান,পরিচ্ছন্ন নেতা,মেধাবী সংগঠক, জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর মতো একজন মানুষকে উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি হিসেবে নির্বাচন করা এখন সময়ের সেরা দাবি।

সীমান্ত শহর উখিয়া উপজেলার তৃণমূল থেকে শুরু করে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন তথা পুরো উপজেলায় নেতৃত্বের গুনাবলী দ্বারা সাধারন মানুষের আস্থা ও বিশ্বাসের এক অভূতপূর্ব অবস্থান সৃষ্টি করেছেন তরুন নেতা জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী। উখিয়া উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর দক্ষ নেতৃত্বের ছোঁয়া লেগেই আছে। তিনি তাঁর একক প্রচেষ্টায়, সাধারণ মানুষকে সাথে নিয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আওয়ামী লীগের মতো পোড় খাওয়া দলকে গুছিয়ে ফুলে ফলে সুশোভিত করে একটি সুন্দর সাজানো বাগানে পরিণত করেছেন। তাই আগামী ২৮-শে জুলাই-২২ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে উখিয়া উপজেলার আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী স্পষ্ট ব্যবধানে এগিয়ে।

তিনি উখিয়া উপজেলার আওয়ামী লীগের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ অন্যান্য অঙ্গ সংগঠনকে গত এক দশকে সুসংগঠিত করার জন্য নিরলস পরিশ্রম করেছেন। দিনরাত অক্লান্ত মেহনত করে ওয়ার্ড থেকে ইউনিয়নে, ইউনিয়ন থেকে উপজেলা পর্যায়ে তিনি আওয়ামী লীগকে সাধারণ মানুষের আস্থা, বিশ্বাস, উন্নয়ন ও অগ্রগতির প্রতীক হিসেবে গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি হ্যামিওলনের বাঁশিওয়ালা হয়ে উখিয়াবাসীকে বিনিসুতোয় শক্ত করে গেঁথে রেখেছেন। দলের প্রয়োজনে, সাধারণ মানুষের প্রয়োজনে ছুটে চলেছেন পাড়া, মহল্লা, ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও পুরো উপজেলায়। একের পর এক বৈঠক করেছেন দলের নেতাকর্মী, সমর্থক ও সাধারণ মানুষের সাথে, কথা বলেছেন, নির্দেশনা দিয়েছেন, গাইড করেছেন ও সুসংগঠিত করেছেন ক্লান্তিহীনভাবে।

সিনিয়ার, জুনিয়ার, কর্মী সমর্থক সবার সাথে সুন্দর সম্পর্ক বজায় রেখে উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগকে তিনি নিয়ে গেছেন এক অনন্য উচ্চতায়।

দেশের সীমান্ত জনপদ কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলা। সীমান্তের এ জনপদে তৎকালীন বিএনপি সরকারের স্থানীয় নেতাদের টানা শাসনে অস্তিত্ব হারিয়েছিল বর্তমান সরকারের আওয়ামীলীগ। একদিকে শাহাজাহান চৌধুরীর পরিবার অন্যদিকে নুরুল ইসলাম চৌধুরী প্রকাশ ঠান্ডা মিয়া চৌধুরীর পরিবার। কালের বিবর্তনে ভাটা পড়া আওয়ামীলীগের রাজনীতিকে প্রান সঞ্চারণ করতে মাঠে নামেন তরুণ প্রজন্মের নেতা জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী। জানা যায়, তিনি প্রথমে কক্সবাজার সরকারি কলেজের ছাত্র থাকাকালীন সময়ে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত হন । পরবর্তীতে ২০০৪ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত উখিয়া উপজেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন । ২০১৩ সালে কাউন্সিলদের প্রত্যক্ষ ভোটে রাজপালং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, পরে ২০১৪ সালে ৬ ই ডিসেম্বর পুরো উপজেলা কাউন্সিলদের প্রত্যক্ষ ভোটে উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। বর্নাঢ্য রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের অধিকারী জননেতা জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী আগামী আওয়ামী লীগের কাউন্সিল নির্বাচনে কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে বিপুল ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হবার সম্ভাবনার কথা খুব বেশি চাওয়াড় হচ্ছে।

পাশাপাশি বর্তমান সরকারের মনোনীত নৌকা প্রতিক নিয়ে তিন-বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। স্বাধীনতার পর থেকে এ জনপদের রাজাপালং ইউনিয়নে জনগণের প্রতক্ষ্য ভোটে আওয়ামীলীগ থেকে প্রথমবারের মতো জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীই চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। সেই থেকে শুরু, এখনো চলছে প্রত্যন্ত জনপদে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর অদম্য পদচারণা, এলাকার মানুষের সুখে দুঃখে দুর্দিনে আস্থার প্রতীক তিনি, যেকোনো বিয়ে বা অনুষ্ঠানে সবর উপস্থিতি থাকে তার।

রাজাপালং ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চলেও ভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছেন তিনি, একাধারে উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান থাকায় সরকার ও দলের পক্ষে বাড়তি সুবিধা পেয়েছেন তিনি। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়ে যাচ্ছেন তিনি। যার ঘর নেই তাকে ঘর দিচ্ছেন, যেখানে ব্রিজ-কালভার্ট নেই সেখানে ব্রিজ- কালভার্ট করে দিচ্ছেন, যেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নেই সেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করে দিচ্ছেন। যেখানে রাস্তা নেই সেখানে রাস্তা করে দিচ্ছেন। উখিয়ার প্রত্যন্ত অঞ্চলে এমন কোন রাস্তা নেই যেখানে জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীর নেতৃত্বের ছোঁয়া লাগেনি। তাইতো উখিয়ার জনগণের মধ্যে কারো কাছে তিনি তরুণ সমাজের আইডল আর কারো কাছে তিনি দুঃখী গণমানুষের নেতা হিসেবে পরিচিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....