• বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বিএমএসএফ কক্সবাজার জেলা শাখার উদ্দ্যোগে ১৫-ই আগষ্ট উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন। নারী চিকিৎসককে গলা কেটে হত্যা, কথিত প্রেমিক কক্সবাজারের রেজা চট্টগ্রামে আটক ভোটার প্রক্রিয়ায় রোহিঙ্গা অধ্যুষিত সীমান্ত এলাকার জন্য ইসি সচিবালয় কর্তৃক ঘোষিত নির্দেশিকা। কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইন চার্জ মনোনীত হয়েছেন’ উখিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী নাদিম আবাসিক হোটেলে মিলল এক নারী চিকিৎসকের গলাকাটা লাশ, কথিত স্বামী পলাতক। বনের জন্য কক্সবাজার হবে মডেল জেলা-প্রধান বনসংরক্ষক কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে হেড মাঝিসহ ০২জন নিহত। আর্থিক খাতে লুটপাটের দায় জনগণ শোধ করবে কেন? মাদক ও ইয়াবার বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত রেখে তরুণ সমাজকে রক্ষা করুণ । কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ এর জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই , মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ডঃ শিরীন আখতার।

AnonymousFox_bwo / ৪৪ মিনিট
আপডেট বুধবার, ২৭ জুলাই, ২০২২

আইকন নিউজ ডেস্কঃ

আমাদের সবার প্রিয় বিদ্যাপীঠ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় আজ কলঙ্কিত , অরক্ষিত এবং লজ্জিত । গত ২৪ জুলাই রাত ৯.৩০ মিঃএ প্রীতিলতা হলের একজন আবাসিক ছাত্রী তার বন্ধুর সাথে বোটানিক্যাল গার্ডেনে যাওয়ার পথে ৫ জন ছাত্র নামধারী সরকার সমর্থিত ছাত্র সংগঠনের কর্মী ঐ ছাত্রীকে একটি গাছের সাথে বেঁধে বিবস্ত্র করে মুঠোফোনে তা ধারণ করে এবং লাঞ্ছিত করে । প্রতিবাদ করায় ছাত্রীর বন্ধুকেও মারধর করা হয় । মুহূর্তে এ বীভৎসতার কথা ক্যাম্পাসের অন্যান্য হলের ছাত্র-ছাত্রীরা জেনে যায় । প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে ওঠে আমাদের প্রিয় ক্যাম্পাস । হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে এসে জড়ো হয় এবং স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত করে তোলে যৌন নিপীড়কদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাদের বহিষ্কারের দাবিতে । এখানে উল্লেখ্য যে এই ৫ জন ছাত্রী নিপীড়ক যৌন সন্ত্রাসীর মাত্র ২ জন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত ছাত্র আর অন্য ৩ জন বহিরাগত সন্ত্রাসী, এরা হাটহাজারী কলেজের ছাত্র । আমাদের সময়ে কোন বহিরাগত সন্ত্রাসী আমাদের প্রিয় ক্যাম্পাসে এসে সন্ত্রাস করার সাহস পায়নি। আর এখন নাকি এটা একেবারেই মামুলি হয়ে দাঁড়িয়েছে —– বহিরাগত সন্ত্রাসীরা প্রতিনিয়ত আমাদের ক্যাম্পাসে এসে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের ব্যানারে ক্যাম্পাসকে কলুষিত করছে ? যা কোন মতেই আমরা প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রীরা মেনে নিতে পারছিনা । আমরা চাই আমাদের প্রাণের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিয়ত এক সুন্দর ও মনোরম ঐতিহ্য নিয়ে বেঁচে থাকুক । আমাদের হৃদয়ে আর যেন কখনো রক্তক্ষরণ না হয় ।

যাক অবশেষে ছাত্র-ছাত্রীদের তীব্র আন্দোলনের মুখে মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর ও আমাদের শ্রদ্ধেয় শিক্ষক প্রফেসর ডঃ শিরীন আখতার বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ সন্ত্রাসীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবন বহিষ্কার করেছেন এবং অপর ৩ সন্ত্রাসীকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের ছাত্রত্ব বাতিল করেছেন ।
এখানেই শেষ নয় ২০২১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরো ২ ছাত্রীকে হেনস্তার ঘটনায় আরো ৪ জন ছাত্রকে ১ বৎসরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করেছেন ভাইস চ্যান্সেলর মহোদয় । তাঁর এই সাহসী পদক্ষেপ কে অবশ্যই সাধুবাদ জানাই । ধন্যবাদ মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর । বিভিন্ন সামাজিক / রাজনৈতিক চাপ ও মতের কাছে তিনি মাথা নত করেননি । এভাবেই আমাদের প্রত্যেককে সকল প্রকার অন্যায়ের বিরুদ্ধে সাহসী ভূমিকা নিতে হবে । সুন্দর এক সমাজ বিনির্মানে আসুন আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হই ।
আমাদের প্রাক্তন ছাত্রদের প্রাণ প্রিয় সংগঠন ‘ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন ‘ এর আয়োজনে ২০১৯ সালে ১ম পুণর্মিলনী উৎসবএবং গত ২০ মে অনুষ্ঠিত হয় ঈদ আনন্দ উৎসব । এদুটো অণুষ্ঠানকে সফল ও সার্থক করার পেছনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর যে সহযোগিতা করেছেন তা ছিল অত্যন্ত প্রশংসনীয় । সুতরাং আমাদের প্রাণপ্রিয় বিদ্যাপীঠ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীন শৃংখলা রক্ষায় ভিসি মহোদয় আজকের সাহসী ভূমিকা অব্যাহত রাখবেন এ আশাবাদ ব্যক্ত করছি । আমরা সাবেক শিক্ষার্থীবৃন্দও এসব ব্যাপারে যেকোনো সহযোগিতায় প্রদানে প্রস্তুত । আমরা চাই আমাদের প্রাণের বিশ্ববিদ্যালয়ে সকল সময় এক সুন্দর ও প্রশান্তির পরিবেশ অব্যাহত থাকুক । জয়তু চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর....